সু’শান্তের সাথে সমস্যা শুরু দাবাং-২ থেকে, এবার কাঠগড়ায় সালমান খান

সু’শান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে স্তব্ধ বলিউড। গত কয়েকদিন ধরেই এ নিয়ে নানা অভিযোগ উঠছে। এবার সেই তালিকায় যোগ হলেন দাবাং খ্যাত সালমান খান। বলা হচ্ছে, সুশান্তের আত্মহত্যার জন্য বলিউডের স্বজনপ্রীতি দায়ী। যেখানে বড় ভূমিকা রেখেছেন সালমান খান। ইতোমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন দাবাং পরিচালক অভিনব কাশ্যপ।

অভিনবের দাবি, সুশান্তকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করা হয়েছে। কেন অভিনেতা আত্মহত্যা করলেন সেই ব্যাপারেও তিনি পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করা হোক বলে সরকারের কাছে দাবি করেছেন। এমনকি বলিউড সুপারস্টার সলমন খান ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন অভিনব কাশ্যপ। সলমন খান, সোহেল খান এবং আরবাজ খান তিনজনে মিলে তার কেরিয়ার নষ্ট করে দেওয়ার জন্য ব্যতিব্যস্ত হয়ে উঠেছেন বলেও দাবি করেছেন তিনি।

দাবাং ছবিটি সফল হওয়ার পর যখন দাবাং টু এর কাজ শুরু করেন তখন এই ঘটনার শুরু বলে জানিয়েছেন তিনি। এমনকি তাঁদের কথা মত না চললে খুন ও পরিবারের মহিলাদের ধর্ষণের হুমকিও দেয়া হয় অভিনবকে। অভিনব এই নিয়ে ফেসবুকে একটি লম্বা পোস্ট করেছেন।

তিনি লিখছেন, “সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার এই ঘটনা আরো অনেক বড় সমস্যাকে সামনে এনে দিয়েছে যে গুলির মধ্যে দিয়ে আমরা অনেকেই যাচ্ছি। এমন কি হতে পারে যেটা মানুষকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করে?” কশ্যপ লেখেন, সরকারের কাছে আমি আবেদন জানাতে চাই সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পূর্ণ তদন্ত হোক… কিন্তু ওঁর লড়াইটা জারি থাকবে, সুশান্তের এই আত্মহত্যা সামনে এনে দিল বলিউডের একটা অনেক বড় সমস্যাকে যার সঙ্গে আমরা অনেকেই লড়াই করে চলেছি।

ঠিক কোন কারণ একটা মানুষকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করতে পারে? আমার মনে হয় সুশান্তের মৃত্যু একটা হিমশৈলের চূড়া মাত্র, ঠিক যেমনটা মিটু আন্দোলন-বলিউডের ভিতরে অনেক বড় অসুস্থতা লুকিয়ে রয়েছে’।

নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে অভিনব লিখছেন, “আমারও একই রকম অভিজ্ঞতা। প্রথমেই আমি দেখেছিলাম কিভাবে ব্যবহার করা হয় এবং মানসিকভাবে অত্যাচার করা হয়।” তিনি জানিয়েছেন সলমন খান দাবাং ছবির পরে তার কেরিয়ার নষ্ট করে দেওয়ার জন্য উঠে পড়ে লেগেছেন। সলমন একা নন।

তাঁর ভাই সোহেল ও আরবাজ ও একই কাজ করেছেন। অভিনয়ের ছবি ‘বেশরম’ মুক্তি পাওয়ার আগেই তাকে নিয়ে নেগেটিভ পাবলিসিটি করা হয় বলেও দাবি করেন তিনি। কিন্তু সুশান্তের মৃত্যুর পর বলিউডের এই ধরনের পক্ষপাতিত্বের বিরুদ্ধে লড়াই করার ডাক দিয়েছেন অভিনব কাশ্যপ।

পোষ্টের শেষে তিনি লিখেছেন, “এটা কোনো হুমকি নয়। এটা ওপেন চ্যালেঞ্জ। সুশান্ত সিং রাজপুত এগিয়ে গিয়েছেন এবং আমি আশা করি ও যেখানে আছে ভালো আছে। কিন্তু আমি এই ব্যাপারটা নিশ্চিত করব যে আর কোনো নিরীহ প্রাণকে যেন এভাবে শেষ হতে না হয়। তাঁরা যেন সম্মান নিয়ে বলিউডে বেঁচে থাকতে পারেন। আমি আশা করি যাঁরা এই একই পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন তারা আমার এই পোস্ট শেয়ার করবেন।” অভিনব এমনকি সলমন খানকে বয়কট করার ডাক দিয়েছেন নেটিজেনদের কাছে।

এদিকে সবার অভিযোগই খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। মন্ত্রী অনিল দেশমুখ টুইটারে লেখেন, ‘‘ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে, গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন অভিনেতা। কিন্তু সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, পেশাগত রেষারেষির কারণে অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। এই দিকটাও খতিয়ে দেখবে মুম্বই পুলিশ।’’

৫০০০+ মজদার রেসিপির জন্য Google Play store থেকে Install করুন “Bangla Recipes” মোবাইল app…. 🙂
.
মোবাইল app Download Link >>> https://bit.ly/2YsK4MO

Loading...